Responsive Ad Slot

সর্বশেষ

latest

রাজনীতি

রাজনীতি

রাজনীতি

রাজনীতি

সারাদেশ

সারাদেশ

বিনোদন

বিনোদন

তথ্যপ্রযুক্তি

তথ্যপ্রযুক্তি

সারাদেশ

সারাদেশ

তথ্যপ্রযুক্তি

তথ্যপ্রযুক্তি

youtube

জাতীয়

জাতীয়

রাজশাহী

হাটহাজারীতে হত্যা মামলার প্রধান আসামি গ্রেফতার

কোন মন্তব্য নেই

 মো:আবু তৈয়ব,হাটহাজারী উপজেলা প্রতিনিধিঃ

চটগ্রাম জেলার  হাটহাজারীতে মো.রাকিব(১৯) নামের হত্যা মামলার এক আসামীকে আটক করেছে পুলিশ। তিনি নগরীর চান্দগাঁও থানার পাঠান পাড়ার গণি কোম্পানীর বাড়ীর মৃত নাছিরের সন্তান বর্তমানে হাটহাজারী উপজেলারী দক্ষিন কুয়াইশের গোল আমগাছতল এলাকার বাসিন্দা।

রবিবার(২৯ নভেম্বর) বিকালের দিকে উপজেলার মদুনাঘাট এলাকা থেকে তাকে আটক করা হয়।

থানা সুত্রে জানা যায়, গোপন সংবাদের ভিক্তিতে অভিযান চালিয়ে ওই হত্যা মামলার প্রধান আসামী মো.রাকিবকে আটক করা হয়। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে খুনি রাকিব পাওনা টাকার লেনদেনকে কেন্দ্র করে ভিকটিম শরীফ’কে ছুরিকাঘাতে হত্যা করে উল্লেখিত স্থানের কচুরিপানাডোবায় কচুরিপানার মধ্যে লাশ ফেলে দেয বলে স্বীকার করেছে।

উল্লেখ্য, গত ২৪ নভেম্বর মঙ্গলবার রাত  আটটার দিকে উপজেলার ১৪ নং শিকারপুর ইউনিয়নস্থ দক্ষিন কুয়াইশ ৮ নং ওয়ার্ডের গোল আমগাছ তল এলাকার পরিত্যক্ত ডোবা থেকে চান্দগাও থানাধীন গোলাপের দোকান এলাকার সোনা পিতার বাড়ীর নুর নবীর ছেলে সিএনজি চালক মো.শরীফের এর ঘাড়ে, পিঠে, বুকে জখমপ্রাপ্ত লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

পরে এ ঘটনায় নিহতের মা বাদী হয়ে হাটহাজারী মডেল থানায় হত্যা মামলা দায়ের করলে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা মদুনাঘাট তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ মো.জাব্বারুল ইসলাম মামলার মূল রহস্য উদঘাটন ও ঘটনায় জড়িত আসামীদের আটক করতে অভিযান শুরু করেন।

আটকের সত্যতা স্বীকার করে মদুনাঘাট তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ মো.জাব্বারুল ইসলাম।




বিভাগীয় কমিশনারের টুটুপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় পরিদর্শন

কোন মন্তব্য নেই

জিয়াউল ইসলাম,খুলনা বিভাগীয় ব্যুরো প্রধানঃ

খুলনার বিভাগীয় কমিশনার ড. মু: আনোয়ার হোসেন হাওলাদার আজ (সোমবার) সকালে নগরীর টুটুপাড়া মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের উন্নয়নমূলক কাজ পরিদর্শন করেন।

পরিদর্শনকালে বিভাগীয় কমিশনার বলেন, সরকার শিক্ষাকে সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়ে এর অবকাঠামোর উন্নয়ন করে যাচ্ছে। প্রাথমিক শিক্ষাকে আন্তর্জাতিক মানে পৌঁছে দেওয়ার জন্য সরকার কাজ করছে। তিনি বলেন, বাংলাদেশ সকল ক্ষেত্রে উন্নতি করছে। বিদ্যালয়ের শ্রেণিকক্ষে পাঠদান ও ক্লাসরুমগুলো আধুনিকায়নের উদ্যোগ নেওয়া হচ্ছে।

পরে বিভাগীয় কমিশনার বিভিন্ন শ্রেণিকক্ষ পরিদর্শন করেন। পরিদর্শনকালে তিনি পরিবেশ দেখে সন্তোষ প্রকাশ করেন।

পরিদর্শনকালে টুটুপাড়া মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পরিচালনা পরিষদের সভাপতি এমএম মাসুদ মাহমুদ, বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সুলতানা শামসীসহ বিদ্যালয়ের অন্যান্য শিক্ষকরা উপস্থিত ছিলেন। 

উল্লেখ্য, বিদ্যালয়ের পরিচালনা পরিষদের সভাপতি এমএম মাসুদ মাহমুদের প্রচেষ্টায় পিইডিপির-৪ এর প্রকল্পের আওতায় প্রায় ৩২ লাখ টাকা ব্যয়ে বিদ্যালয়ের বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কাজ চলছে।

সিরাজদিখানে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইন ২০০৯ বিষয়ে সেমিনার

কোন মন্তব্য নেই

 আরিফ হোসেন হারিছ,মুন্সীগঞ্জ জেলা প্রতিনিধিঃ

 মুন্সীগঞ্জের সিরাজদিখানে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইন-২০০৯ বাস্তবায়নের লক্ষ্যে সিরাজদিখানে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ বিষয়ক সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়েছে। সোমবার ৩০ নভেম্বর  বেলা ১১ টায় উপজেলা প্রশাসনের  আয়োজনে উপজেলা র্নিবাহী কর্মকতা সৈয়দ ফয়েজুল ইসলাম এর সভাপতিত্বে উপজেলা অডিটোরিয়ামে প্রধান অতিথি  উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও আ'লীগ সভাপতি হাজী  মহিউদ্দিন আহম্মেদ এর উপস্থিতিতে। 

বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মঈনুল হাসান নাহিদ,  উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) আহাম্মেদ সাব্বির সাজ্জাত

মুন্সিগঞ্জ  ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতরের সহকারী পরিচালক আছিব আল আজাদ ,  উপজেলা ক্যাবের সভাপতি শামসুজ্জামান পনির সাধারণ সম্পাদক মো. নাছির উদ্দিন  ব্যবসায়ী প্রতিনিধি, বিভিন্ন এনজিও প্রতিনিধিসহ স্থানীয় পর্যায়ের অংশীদাররা অংশ নেন।

সেমিনারে অতিথিরা বলেন, স্থানীয় পর্যায়ে ভোক্তার অধিকারের দিকে খেয়াল রাখতে হবে। ভোক্তারা যাতে ক্ষতিগ্রস্ত না হয় সে লক্ষ্যে প্রশাসনের বিভিন্ন পর্যায়ের অভিযান এবং ভ্রাম্যমাণ আদালতের নজরদারি বাড়াতে হবে।

ভোক্তার স্বার্থের দিকে খেয়াল রেখে সকল পণ্য উৎপাদন ও বাজারজাত করতে হবে। এছাড়া সেবাদানকারী সংস্থাগুলোকে ভোক্তার স্বার্থ অক্ষুণ্ণ রাখার আহ্বান জানানো হয় সেমিনারে

রংপুরে জাতীয় আয়কর দিবস পালিত

কোন মন্তব্য নেই

শরিফা বেগম শিউলী,রংপুর বিভাগীয় ব্যুরো প্রধানঃ

সবাই মিলে দিব কর - দেশ হবে স্বনির্ভর। "স্বচ্ছ ও আধুনিক করসেবা প্রদানের মাধ্যমে করদাতা বান্ধব পরিবেশ নিশ্চিতকরণ" এই স্লোগান সামনে রেখে স্বাস্থ্য বিধি মেনে  ৩০ নভেম্বর জাতীয় আয়কর দিবস ২০২০ উপলক্ষে  রংপুর কর অঞ্চল এর উদ্যোগে র‍্যালী বের করা হয়। 

গতকাল সোমবার সকালে কাচারী বাজার রংপুর কর অফিসের সামনে রংপুর কর অঞ্চল এর আয়োজনে বেলুন ও ফেস্টুন উড়িয়ে র‍্যালীর উদ্বোধন করেন প্রধান অতিথি রংপুর কর অঞ্চলের কর কমিশনার আবু  হান্নান দেলওয়ার হোসেন। 

এ সময় উপস্থিত ছিলেন রংপুর কর অঞ্চলের অতিরিক্ত কর কমিশনার মোঃ মঞ্জুর আলম, যুগ্ম কর কমিশনার মোঃ আশরাফুল ইসলাম, উপ-কর কমিশনার সুমন কুমার বর্মণ, রংপুর প্রেস ক্লাবের সভাপতি রশিদ বাবু । 

এছাড়া র‍্যালীতে অংশ করেন রংপুর ট্যাক্সেস বার এর সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক, সাংবাদিক মহল সহ সকল কর্মকর্তা ও কর্মচারীবৃন্দ।

সিরাজদিখান উপজেলা স্বাস্থ কমপ্লেক্সে দালালের দৌরাত্ব, সেবাবঞ্চিত হচ্ছেন সাধারণ রোগীরা

কোন মন্তব্য নেই

আরিফ হোসেন হারিছ,মুন্সীগঞ্জ জেলা প্রতিনিধিঃ

মুন্সীগঞ্জের  সিরাজদিখানে উপজেলা স্বাস্থ কমপ্লেক্সে দিন দিন দালালের উৎপাতে বেড়েই চলছে। এ সব দালালদের উৎপাতে অতিষ্ঠ হয়ে পড়েছে সেবা নিতে আসা সাধারন রোগীরা। যত্রতত্র দালাল ও ঔষুধ কোম্পানীর প্রতিনিধিদের উৎপাতে সেবা বঞ্চিত হচ্ছে রোগীসহ সাধারন মানুষ।

সিরাজদিখান উপজেলাবাসীর একমাত্র সরকারী হাসপাতালটি উপজেলার ইছাপুরা  ইউনিয়নে হওয়ায় এ সুযোগে আশেপাশে ব্যাঙের ছাতার মত গড়ে উঠা নামসর্বস্ব ক্লিনিক ও ডায়াগনস্টিক সেন্টার। এ সব ক্লিনিকের পোষা দালালদের কারনে সরকারি এ হাসপাতালে সেবা পাচ্ছে না রোগীরা। এসব ক্লিনিকের দালালদের প্ররোচনায় নিঃস্ব হচ্ছে রোগী ও স্বজনরা।

স্থানীয়রা জানান, সরকারী হাসপাতালের আশেপাশে স্থানীয় প্রভাবশালীদের সমন্বয়ে প্রতিষ্ঠিত করা ক্লিনিক মালিকদের পৃষ্ঠপোষকতার কারনে এদের বিরুদ্বে স্থায়ীভাবে ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে না। বর্তমানে উপজেলা সাস্থকমপ্লেক্সে জরুরি বিভাগ ছাড়া ও অর্থোপেড্রিক্সস, গাইনী ও প্রসূতি, শিশু মেডিসিন, সার্জারী, প্যাথলজি বিভাগসহ অস্ত্রোপচার কক্ষ রয়েছে। এত কিছু থাকা পরও দালাল, ঔষধকোম্পানীর প্রতিনিধিদের উৎপাতে কাঙ্খিত সেবা পাচ্ছে না রোগীরা। হাসপাতালকে ঘিরে ১ ডজনেরও বেশি দালাল সক্রিয়। কমিশন ভিত্তিক কাজ করা এ সব দালাল চক্রের হোতারা উন্নত চিকিৎসার প্রলোভন দেখিয়ে অশিক্ষিত নিরিহ রোগীদের বাগিয়ে ক্লিনিকে নিয়ে যায়। সেখানে ভর্তি ফি হতে শুরু করে রোগ নির্নয়ের জন্য পরীক্ষা নিরীক্ষা ফি থেকে কমিশন পান দালালরা।

সেবা নিতে আশা রোগীরা বলেন, এখানে চিকিৎসা নিতে আসলে কোন পরীক্ষা নিরীক্ষা প্রয়োজন হলে ডাক্তাররাই প্রাইভেট ক্লিনিকে যাওয়ার জন্য বলেন। এ ছাড়া সরকারি হাসপাতালে বেশির ভাগ চিকিৎসক বিভিন্ন ক্লিনিকের ঠিকানা দেয় ভাল ভাবে চিকিৎসা নিতে যাওয়ার জন্য। এছাড়াও ক্লিনিক থেকে কমিশনের জন্য প্রয়োজনের অতিরিক্ত পরিক্ষা নিরীক্ষাও দেয় তারা।

সিরাজদিখান উপজেলা স¦াস্থ্য কর্মকর্তা ডা. আঞ্জুমান আরা বলেন, আমি এখানে নতুন এসেছি। যদি আগে থেকে এধরনের দালালের প্রচলন হয়ে থাকে তবে তা একমুহুর্তে বন্ধ করেতে পারছি বলে আমি মনে করছি না। তবে এখন দালালদের কমই পাবেন। আমি নিজে তদারকি করছি আমার সামনে এখনো কোন দাদাল পরেনি। চিকিৎসকরা রোগিদের ক্লিনিকে পাঠানোর ব্যাপারে যানতে চাইলে তিনি বলেন, আমি মিটিং করে সকল চিকিৎষদের বলে দিয়েছি এ হাসপাতালে রোগিদের কোন অসুবিধা হয় এমন কোন কাজ কেও করলে আমি কঠোর ভাবে ব্যাবস্থা নিব।#

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি সময়েরদাবি ডট কমকে জানাতে ই-মেইল করুন- news@shomoyerdabi.com আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
© সময়ের দাবি (২০১৯-২০২০)
made with Antor Mittro