Responsive Ad Slot

সর্বশেষ

latest

ধর্ষণ বিরোধী লং মার্চে নৃশংস হামলা, আহত অর্ধশতাধিক

শনিবার, ১৭ অক্টোবর, ২০২০

/ by আরিফুল হাসান

শেখ নাদিম,চট্টগ্রাম বিভাগীয়  ব্যুরো প্রধানঃ

আজ  শনিবার ( ১৭ অক্টোবর) দুপুরে ফেনীতে ধর্ষণবিরোধী লংমার্চ এ ছাত্রলীগ-যুবলীগের নৃশংস হামলায় অর্ধশতাধিক আন্দোলনকারী আহত হয়। আহতদের বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হয়। আশঙ্কাজনক অবস্থায় একজনকে নোয়াখালী সদর হাসপাতাল থেকে ঢাকায় নেয়া হচ্ছে। 




 দুপুরে ফেনীতে সমাবেশ শেষে নোয়াখালীর উদ্দেশ্যে লং মার্চটি মিছিল নিয়ে এগোলে দফায় দফায় হামলা করে ছাত্রলীগ ও যুবলীগের নেতাকর্মীরা। এক পর্যায়ে আন্দোলনকারীরা বাসে উঠলে সেই বাসে লাঠিসোটা ও পাথর ছুড়ে হামলা করা হয়। হামলায় ছাত্র ফেডারেশনের কেন্দ্রীয় দপ্তর সম্পাদক এম এইচ রিয়াদ, যশোরের সংগঠক জান্নাতুল ফাতেমা অনন্যা, বাগেরহাটের মোরলগঞ্জের সংগঠক মেহেদি হাসান শুভ, গাজীপুরের সংগঠক জয়, ঢাবি শাখার সদস্য সীমা আক্তার, নারায়ণগঞ্জের বন্ধু মাহিনসহ প্রত্যেক সংগঠনের প্রায় অর্ধশতাধিক নেতাকর্মী গুরুতর আহত হয়। বারংবার হামলার শিকার হয়েও লং মার্চটি নোয়াখালীর মাইজদীতে পৌঁছায় এবং সমাপনী সমাবেশ করে। হামলার তীব্র প্রতিবাদ জানিয়ে ছাত্র ফেডারেশনের কেন্দ্রীয় সভাপতি গোলাম মোস্তফা বলেন, বর্তমান সরকার স্বৈরাচারের চরম পর্যায়ে পৌঁছে গেছে। তারা জনগনের ন্যায্য আন্দোলনকে ভয় পায়। সরকার বুঝে গেছে জনগণ তাদের চায় না। সরকার এই গুন্ডা বাহিনী দিয়ে তাদের স্বৈরতন্ত্র বেশিদিন টিকিয়ে রাখতে পারবেনা। এসময় তিনি  গুন্ডা, গুন্ডাতন্ত্র এবং হামলাকারীদের বিরুদ্ধে গণপ্রতিরোধ গড়ে তোলার আহ্বান জানান। 


সংগঠনটির সাধারণ সম্পাদক জাহিদ সুজন বলেন, পুলিশের মদদে ছাত্রলীগ ও যুবলীগের সন্ত্রাসী হামলা ইতিহাসে ন্যাক্কারজনক অধ্যায় হিসেবে লেখা থাকবে। এই হামলা প্রমাণ করে সরকার ধর্ষক ও নিপীড়কের আশ্রয়দাতা। ধর্ষকদের রক্ষা করার জন্যই সরকারের মদদেই এই হামলা হয়েছে। তিনি আরো বলেন যেই রাষ্ট্রে জনবিচ্ছিন্ন ভোটারবিহীন সরকার থাকবে সেই রাষ্ট্রে ন্যায় বিচার বরাবরে উপেক্ষিত থাকবে। ফলে জনগণের নিরাপত্তার জন্য এই স্বৈর সরকারকে উৎখাত করার বিকল্প নাই। আর এর জন্য প্রয়োজন জনগনের ঐক্যবদ্ধ শক্তি।

কোন মন্তব্য নেই

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

Don't Miss
© সময়ের দাবি (২০১৯-২০২০)
made with Antor Mittro