Responsive Ad Slot

সর্বশেষ

latest

হেফাজতের কমিটিতে জামাতের কাউকে স্থান দেওয়া হয়নি

শনিবার, ২১ নভেম্বর, ২০২০

/ by আরিফুল হাসান

মো:আবু তৈয়ব,হাটহাজারী উপজেলা প্রতিনিধিঃ

গত ১৫ নভেম্বর সদ্য ঘোষিত  হেফাজতে ইসলাম বাংলাশের কমিটিতে জামাতের সাবেক সভাপতি পদ পেয়েছেন বলে সম্প্রতি ডিবিসি নিউজকে  মুফতী  ওয়াক্কাসের দেওয়া সাক্ষাৎকার  ভিত্তিহিন ও ভূয়া আখ্যায়িত করে এর তীব্র নিন্দা  ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের কেন্দ্রীয় প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক মাওলানা জাকারিয়া নোমান ফয়েজী।


শনিবার (২১নভেম্বর)  সংবাদমাধ্যমে প্রেরিত  এক বিবৃতিতে মাওলানা জাকারিয়া নোমান ফয়জী বলেন, হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের সদ্য ঘোষিত কমিটিতে জামাতের কেহ নেই। জামাতের কেহ-ই  হেফাজতের কমিটিতে স্থান পায়নি। জামাতের সাবেক সভাপতি হেফাজতের কমিটিতে পদ পেয়েছেন মর্মে ডিবিসি নিউজে যে প্রতিবেদন প্রচারিত হয়েছে তা সম্পূর্ণ উদ্দেশ্যপ্রণোদিত ও অবাস্তব। বাস্তবতার সাথে এর কোনো মিল নেই। জনমনে বিভ্রান্তি সৃষ্টির লক্ষ্যে এমন ডাহামিথ্যে প্রতিবেদন করেছেন ডিবিসি। আমরা এর তীব্র নিন্দা জানায়। 


মাওলানা জাকারিয়া নোমান আরো বলেন, আজীবন যিনি চারদলীয় জোটের সাথে রাজনীতি করে চুলদাড়ি পাকিয়েছেন তিনি হেফাজতের কমিটিতে জামাত খোঁজা বড়ই হাস্যকর বিষয়।  বয়োবৃদ্ধ বয়সে তাঁর মুখ থেকে এমন দায়িত্বহীন বক্তব্য আমরা আশা করিনি।  তাঁর এমন বক্তব্যে জাতী মর্মাহত হয়েছে। 


সকলের নিকট প্রশ্ন রেখে নোমান ফয়জী বলেন,  আজ যাদেরকে জামাত ইত্যাদির তকমা লাগিয়ে হেফাজতের কমিটিকে প্রশ্নবিদ্ধ  করার ঘৃণ্য ষড়যন্ত্র করা হচ্ছে তারা তো শায়খুল ইসলাম আল্লামা শাহ আহমদ শফি রহ, এর জীবদ্দশায় হেফাজতের গুরুত্বপূর্ণে দায়িত্বে ছিলেন। সেদিন কেন তাদের বিরুদ্ধে জামাতের অভিযোগ করা হয়নি?  এক সময় জামাত করলে সে অন্যদল করতে পারবে না এটা কি হতে পারে?  একসময় জামাতের অর্থযোগান দাতা এখন আওয়ামীলীগের সাংসদ। তিনি আরো বলেন মুফতি হারুন ইজহের সহ কয়েকজনের বিরুদ্ধে  বাম পাড়ার মানুষের মত জিহাদি টেক লাগানোর কঠোর সমালোচনা করেন তিনি।

তিনি বলেন, হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশ দেশের সর্ববৃহৎ অরাজনৈতিক সংগঠন। দেশের শীর্ষ ওলামায়ে কেরামের ঐক্যবদ্ধ মতামতের ভিত্তিতেই হেফাজতের কমিটি ঘোষণা হয়েছে। হেফাজতের নতুন কমিটি দেশবাসীর নিকট গ্রহণযোগ্য হয়েছে,  সকলের আশা প্রতিফলন ঘটেছে।  বাম মিডিয়ার সহযোগিতায়  গুটিকয়েক কুচক্রী হেফাজতের সর্বজন গ্রহণযোগ্য কমিটি নিয়ে অবান্তর ও ভিত্তিহীন প্রশ্ন উথাপন করে ঘোলা পানিতে মাছ শিকারের অপচেস্টা করতেছে।  হেফাজতের নেতৃবৃন্দ সহ দেশবাসীকে এ ব্যাপারে সর্তক থাকার  আহবান করছি।







কোন মন্তব্য নেই

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি সময়েরদাবি ডট কমকে জানাতে ই-মেইল করুন- news@shomoyerdabi.com আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
সময়ের দাবি
© সময়ের দাবি (২০১৯-২০২০)
made with Antor Mittro